শিরোনাম :
প্রচ্ছদ / অন্যান্য / আল্লাহ্ সম্পর্কে

আল্লাহ্ সম্পর্কে

সম্মানিত শায়খ! আল্লাহ আপনাকে হেফাযত করুন! আপনি বলেছেন, আরশের উপরে আল্লাহর সমুন্নত হওয়া বিশেষ এক ধরণের সমুন্নত হওয়া, যা কেবলমাত্র আল্লাহর বড়ত্ব ও মর্যাদার শানে প্রযোজ্য। আমরা কথাটির বিস্তারিত ব্যাখ্যা জানতে চাই।
সম্মানিত শায়খ! আল্লাহ আপনাকে হেফাযত করুন! আপনি বলেছেন, আরশের উপরে আল্লাহর সমুন্নত হওয়া বিশেষ এক ধরণের সমুন্নত হওয়া, যা কেবলমাত্র আল্লাহর বড়ত্ব ও মর্যাদার শানে প্রযোজ্য। আমরা কথাটির বিস্তারিত ব্যাখ্যা জানতে চাই।
কিছু কিছু মানুষ আল্লাহর কাছে দু’আ করে থাকে। কিন্তু দু’আ কবূল হওয়ার কোন লক্ষণ দেখা যায় না। অথচ আল্লাহ তাআ’লা বলেছেন, “তোমরা আমাকে ডাক, আমি তোমাদের ডাকে সাড়া দিব”। তাহলে মানুষ কিভাবে আল্লাহর কাছে দু’আ করলে তা কবূল হবে?
কিছু কিছু মানুষ আল্লাহর কাছে দু’আ করে থাকে। কিন্তু দু’আ কবূল হওয়ার কোন লক্ষণ দেখা যায় না। অথচ আল্লাহ তাআ’লা বলেছেন, “তোমরা আমাকে ডাক, আমি তোমাদের ডাকে সাড়া দিব”। তাহলে মানুষ কিভাবে আল্লাহর কাছে দু’আ করলে তা কবূল হবে?
উপরের প্রশ্নের উত্তর থেকে বুঝা গেল যে ‘‘আল্লাহ যা চান এবং আপনি যা চান’’ বলা নিষিদ্ধ, কিন্তু ‘‘আল্লাহ যা চান অতঃপর আপনি যা চান’’- এ কথা বলা জায়েয। এখন কথা হলঃ ‘‘এবং ও অথবা’’- এ দু’টি শব্দে মধ্যে পার্থক্যটা কী?
উপরের প্রশ্নের উত্তর থেকে বুঝা গেল যে ‘‘আল্লাহ যা চান এবং আপনি যা চান’’ বলা নিষিদ্ধ, কিন্তু ‘‘আল্লাহ যা চান অতঃপর আপনি যা চান’’- এ কথা বলা জায়েয। এখন কথা হলঃ ‘‘এবং ও অথবা’’- এ দু’টি শব্দে মধ্যে পার্থক্যটা কী?